অটোরিকশা চালকের দুই ছেলে সুযোগ পেলেন মেডিকেলে

অটোরিকশা চালকের দুই ছেলে সুযোগ পেলেন মেডিকেলে
বাবার সাথে আরিফুল ইসলাম ও শরিফুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

অটোরিকশা চালক বিল্লাল হোসেনের যমজ দুই ছেলে আরিফুল ইসলাম ও শরিফুল ইসলাম। মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় অনন্য নজির সৃষ্টি করলেন তারা দুজনে। ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় দুজনেই কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখেন। আরিফ ৮২২তম আর শরিফ ১১৮তম।

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার মানরা গ্রামের দুই ভাইয়ে কৃতিত্বে উচ্ছ্বসিত গ্রামবাসী। মেধার ভিত্তিতে আরিফ ময়মনসিংহ মেডিকেলে আর শরিফ চট্রগ্রাম মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ পাচ্ছেন।

অদম্য ইচ্ছাশক্তিই তাদের সফলতার পথ দেখিয়েছে। অভাবের সংসার তাদেরকে শক্তি ও সাহস যুগিয়েছে। দুই ভায়ের সাফল্যের পেছনে বাবার পরিশ্রম আর মায়ের অদম্য প্রেরণা তাদের সাহস যুগিয়েছে বলে জানান দুই ভাই। শিক্ষকদের সহযোগিতার কথাও শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন তারা।

মান্দারগাঁও উচ্চ বিদ্যালয় থেকে তারা দুজনে ২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ -৫ পেয়ে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখেন। অভাবের সংসার তাই এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ভর্তি হন কুমিল্লা সরকারি সিটি কলেজে। সেখান থেকে এইচএসসিতেও দুজন জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন।

অর্থের অভাবে নিজে পড়াশুনা চালিয়ে যেতে পারেননি বিল্লাল হোসেন। তাই কষ্ট করে হলেও সন্তানদের উচ্চশিক্ষা সম্পন্ন করানোর সংকল্ক ছিলো বাবার। মেডিকেলে দুই ভাইয়ের একত্রে সুযোগ পাওয়ায় বিল্লাল হোসেনের আনন্দের সীমা নেই। আবার সঙ্কাও আছে। পারবেন তো খরচ চালিয়ে নিতে? তিনি সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতাও প্রত্যাশা করেন।

তাদের পড়াশুনায় যেমন এগিয়ে এসেছেন এলাকাবাসী, তেমনি চিকিৎসক হয়ে মানুষের সেবা করতে চান দুই ভাই। পাশাপাশি বাবা-মায়ের স্বপ্ন পূরণের তৃপ্তির কথা জানান দুজনে।