অধ্যাদেশে আটকে গেছে এইচএসসির ফল

নিজস্ব প্রতিবেদক
এইচএসসির ফল
ফাইল ছবি

অধ্যাদেশে আটকে গেছে এইচএসসির ফল। পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসির ফল প্রকাশের অধ্যাদেশ আগামী ১১ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ সভায় ওঠার কথা রয়েছে। সেখানে অনুমোদন হলে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির অনুমোদনের পর তা জারি করা হবে। সে হিসেবে জানুয়ারির শেষে বা ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে এইচএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ করা হতে পারে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি চলতি সপ্তাহে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশের ঘোষণা দিলেও পরীক্ষা ছাড়া ফল প্রকাশের অধ্যাদেশ জারি না হওয়ায় তা আটকে গেছে। পরীক্ষা ছাড়া ফলাফল তৈরির অধ্যাদেশ চূড়ান্ত করতে ৪ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ সভায় অনুমোদনের কথা থাকলেও সভা বাতিল হওয়ায় তা পিছিয়ে গেছে। ১১ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ সভায় অধ্যাদেশটি অনুমোদন হওয়ার কথা রয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত এক সচিব গণমাধ্যমকে বলেন, আগামী মন্ত্রিপরিষদ সভায় অধ্যাদেশ অনুমোদন হলেও পরে নানান ধরনের প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হবে। ভাষাগত ও আইনি অসঙ্গতি রয়েছে কি না তা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। সেখান থেকে চূড়ান্ত হলে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরের জন্য আলাদা করে পাঠানো হবে। স্বাক্ষর প্রদানের পর তা জারি করা হবে।

তিনি বলেন, ‘অধ্যাদেশ জারির পরবর্তী এক সপ্তাহ পর এইচএসসি সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা সম্ভব হবে। সে হিসেবে জানুয়ারির শেষে অথবা ফেব্রুয়ারির প্রথম দিকে ফলাফল প্রকাশ করা সম্ভব হবে।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমকে বলেন, ‘অধ্যাদেশ অনুমোদনের জন্য মন্ত্রিপরিষদে পাঠানো হয়েছে। এরপর প্রক্রিয়াগত কারণে আইন মন্ত্রণালয়, প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো হবে। সে জন্য ফলাফল প্রকাশে কিছুটা দেরি হতে পারে।’

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে এবার পরীক্ষা ছাড়াই এইচএসসি ও সমমানের শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা হবে। সম্প্রতি সাংবাদিকদের সঙ্গে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছিলেন, ‘ডিসেম্বর মাসের মধ্যে মূল্যায়নের ফল ঘোষণা করা হবে।’

পরবর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আইনি বাধ্যবাধকতার কারণে শিগগিরই অধ্যাদেশ জারির পর ফল প্রকাশ করা হবে। ফল তৈরি আছে, জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে অধ্যাদেশ জারি করে ওই সপ্তাহে ফলাফল প্রকাশ কর হবে।’ তবে মন্ত্রিপরিষদ সভায় এখনো অনুমোদন না হওয়ায় এ সপ্তাহে ফল প্রকাশ সম্ভব হচ্ছে না।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, ‘এইচএসসির ফল তৈরির কাজ শেষ পর্যায়ে। অধ্যাদেশ জারি হলে পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে প্রকাশ করা সম্ভব হবে।’

তিনি বলেন, ‘যেহেতু শিক্ষাবোর্ডগুলো পাবলিক পরীক্ষা নিয়ে ফল প্রকাশ করে, এ কারণে পরীক্ষা ছাড়া কোনো পাবলিক পরীক্ষার ফল প্রকাশ করতে হলে অধ্যাদেশ জারি করতে হচ্ছে। সেটি জারি হলে জেএসসি এবং এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ওপর মূল্যায়ন করে এইচএসসির ফল প্রকাশ করা হবে।’