উদ্যোক্তাদের প্ল্যাটফর্ম ডিবিসি

উদ্যোক্তাদের প্ল্যাটফর্ম ডিবিসি
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বিজনেস কমিউনিটি (ডিবিসি)

আধুনিক সময়ে ব্যবসা নেটওয়ার্কিং বা যোগাযোগের উপর অনেকটাই নির্ভরশীল। নেটওয়ার্কিংয়ে যিনি ভালো, ব্যবসায়ে সহজে সাফল্য পেয়ে থাকেন বলেই আমরা দেখি। পণ্য বা সেবা গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দিতে অনেক ধরনের যোগাযোগের প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়। উদ্যোক্তাদের এই নেটওয়ার্কিংয়ের ব্যাপারটাকে আরো সহজ করার লক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী ইমতিয়াজ উদ্দিনের হাত ধরে যাত্রা শুরু করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বিজনেস কমিউনিটি (ডিবিসি)।

ডিবিসি আগামী ৭ অক্টোবর থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত ৪ দিনব্যাপী মেলা আয়োজন করেছে। আসন্ন দূর্গাপূজাকে সামনে রেখে তাদের এই আয়োজন বলে জানান উদ্যোক্তারা। ডিবিসির সঙ্গে যুক্ত উদ্যোক্তাদের নিয়মিত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রমোট করার পাশাপাশি লাইভের মাধ্যমে তাদের পণ্য বা সেবাকে প্রচার-প্রসারে কাজ করে যাচ্ছে ডিবিসি।

ইমতিয়াজ উদ্দিন নিজেও একজন উদ্যোক্তা বলে জানান। তার প্রতিষ্ঠানের নাম ক্যালিভার্ড। মূলত গার্মেন্টস ম্যানুফেকচ্যারিং, ফার্ণিচার ম্যানুফেকচারিং এবং অনলাইন শপ নিয়ে কাজ করছে ক্যালিভার্ড। ইমতিয়াজ উদ্দিনের সাথে ডিবিসিতে প্রতিনিয়ত কাজ করছেন মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, মোবাশশিরা দিদার আদিবা, হুমায়রা আনজীর, শাহরীন বাঁধন, আশনা আনজুম, মেহেরুন নেসা তন্নী, সুমাইয়া, জারিন তাসনিম অন্বেষা। এরা প্রত্যেকেই উদ্যোক্তা। সকলের প্রচেষ্টায় খুব অল্প সময়ের মাঝেই ডিবিসির সাথে যুক্ত হয়েছে প্রায় ৩০০ উদ্যোক্তা।

উদ্যোক্তাদেরকে বিভিন্ন মিডিয়ার সাথে সংযুক্ত করে, গণমাধ্যমের সহায়তা নিয়ে দেশব্যাপী ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষ্যে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে তারা। করোনার মহামারীর সময়ে অনলাইন অ্যক্টিভিটির পাশাপাশি ওয়ার্কশপসহ উদ্যোক্তাদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে সহায়ক কার্যক্রম পরিচালনা করছে ডিবিসি। এই প্লাটফর্মের ছোটো-বড় স্টার্টআপ গুলো একদিন অনেক বড় হবে। নিজ নিজ ইন্ডাস্ট্রিতে অবদান রাখবে এবং অসংখ্য মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখবে এমন স্বপ্ন ইমতিয়াজ উদ্দিনসহ ডিবিসি’র সকল সদস্যদের।