ঢাকা কলেজের ৪ রোভার ১৫০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেবে পায়ে হেঁটে

ক্যাম্পাস প্রতিবেদক
পায়ে হেঁটে ১৫০ কিলোমিটার
ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা কলেজ রোভার স্কাউট গ্রুপের সেবা স্তরের চার রোভার চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত ১৫০ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে পরিভ্রমণের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন।

ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক নেহাল আহমেদ ৫ নভেম্বর তার কার্যালয়ে তাদের পরিভ্রমণ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

এদিন সকালে ঢাকা কলেজের প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে ঢাকা কলেজ রোভার স্কাউট গ্রুপের রোভার মো. আল আমীন, মো. রাকিবুল হাসান তামিম, মো. সাকিব হাসান নাহিদ ও আলমগীর হোসেন পরিভ্রমণের উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেন। আগামী ৭ থেকে ১১ নভেম্বর চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত ১৫০ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে পাড়ি দেবেন তারা।

যাত্রাপথে তারা বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ এবং গুরুত্বপূর্ণ স্থান পরিদর্শন ও পর্যবেক্ষণ করবেন। একই সঙ্গে সাধারণ জনগণের মধ্যে পরিবেশ বিষয়ে সচেতনতা, বাল্যবিবাহ রোধ এবং মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সচেতনতামূলক প্রচারণাও চালাবেন।

রোভার স্কাউটদের এমন কার্যক্রমের প্রশংসা জানিয়ে অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, শিক্ষার্থীদের বহুমাত্রিক বিকাশ বর্তমান সময়ের দাবি। আমরা সবসময় চাই, শিক্ষার্থীরা পড়াশোনার পাশাপাশি কিছু স্বেচ্ছাসেবী কার্যক্রমের সাথে যুক্ত থাকুক, যেন নিজেরা আপন শক্তিকে ধারণ করতে পারে। ঢাকা কলেজ প্রশাসন সবসময় শিক্ষার্থীদের এমন স্বেচ্ছাসেবী মূলক কর্মকাণ্ডকে উৎসাহিত করেছে এবং সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছে। ভবিষ্যতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে।

ঢাকা কলেজ রোভার স্কাউট গ্রুপের সম্পাদক ও অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক শামিম আরা বেগম বলেন, রোভারিংয়ের মাধ্যমে একজন সাধারণ শিক্ষার্থীর মাঝে পূর্ণ অদম্য সৃষ্টি হয়। ঢাকা কলেজ রোভার স্কাউট গ্রুপ সবসময় এই অদমনীয় সহনশীলতা সম্পন্ন শিক্ষার্থী গড়ে তুলতে কাজ করছে। এতে করে পড়াশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের মানসিক বিকাশ ঘটছে। আগামীর পথচলাতেও আমাদের এমন কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে ।

উল্লেখ্য, রোভারিংয়ের সর্বোচ্চ অ্যাওয়ার্ড ‘প্রেসিডেন্ট রোভার স্কাউট অ্যাওয়ার্ড (পিআরএস)’ প্রাপ্তির লক্ষ্যে সেবা স্তরে রোভারদের পায়ে হেঁটে ১৫০ কিলোমিটার বা নৌকাযোগে ৩০০ কিলোমিটার অথবা সাইকেল যোগে ৫০০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে একটি প্রোগ্রাম সম্পন্ন করতে হয়, যা স্কাউটিংয়ে র্যাম্বলিং বা পরিভ্রমণ নামে পরিচিত।