ঢাবির চারুকলা অনুষদে জয়নুল উৎসব উদযাপিত

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
ঢাবির চারুকলা অনুষদে জয়নুল উৎসব উদযাপিত
ঢাবির চারুকলা অনুষদে জয়নুল উৎসব উদযাপিত

শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের ১০৬তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদে দিনব্যাপী জয়নুল উৎসব-২০২০ উদযাপন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদে দিনব্যাপী এ উৎসবের আয়োজন করা হয়। সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান শিল্পাচার্যের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক নিসার হোসেন, ঢাবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূঁইয়া ও শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের ছেলে প্রকৌশলী ময়নুল আবেদিন উপস্থিত ছিলেন।

জয়নুল আবেদিনের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ঢাবি উপাচার্য বলেন, চারুকলা শিক্ষার প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেয়ার জন্য ১৯৪৮ সালে ঢাকা আর্ট ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করেন শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন। এই আর্ট ইনস্টিটিউট বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা অনুষদ হিসেবে সুপরিচিত। তার অনবদ্য সৃষ্টি এই প্রতিষ্ঠানটি শুধু বাংলাদেশেই নয়, ভারতীয় উপমহাদেশে চারুকলা শিক্ষা প্রসারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে।

এছাড়া, বিভিন্ন জনপদের লোকশিল্পসমূহ সংগ্রহ করে রাখার জন্য নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে লোকশিল্প জাদুঘর প্রতিষ্ঠা করেন তিনি। এই জাদুঘর প্রতিষ্ঠার ফলে মানুষ সেগুলো দেখে দেশের শিল্প, সংস্কৃতি, মাটি, মানুষ ও প্রকৃতি সম্পর্কে জানতে পারে।

তিনি আরও বলেন, জয়নুল আবেদিন ১৯৪৩ সালে দুর্ভিক্ষের মর্মস্পর্শী ও মানবিক চিত্র এঁকে বিশ্ব বিবেককে নাড়া দিয়েছিলেন, যা তাকে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে খ্যাতি এনে দিয়েছে। বিভিন্ন চিত্রকর্মের মাধ্যমে নানাবিধ সামাজিক অসঙ্গতি, অনিয়ম, বৈষম্য, সাধারণ মানুষের দুঃখ-দুর্দশা, প্রাকৃতিক বিপর্যয় ফুটিয়ে তুলেছেন এবং অন্যায়ের প্রতিবাদ করেছেন তিনি। শিল্পাচার্যের এসব কর্মপ্রয়াস শিল্পজগতে তাকে অমরত্ব এনে দিয়েছে।

জয়নুল উৎসব-২০২০ উপলক্ষে চারুকলা অনুষদের ওয়েবসাইটে শিল্পাচার্যের জীবন ও কর্মভিত্তিক আলোকচিত্র এবং শিল্পকর্মের ভার্চুয়াল প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। এছাড়া চারুকলা অনুষদের শিক্ষকসহ উপমহাদেশের বিশিষ্ট শিল্পীদের শিল্পকর্ম নিয়ে আর্টকনের সহযোগিতায় থ্রিডি প্রযুক্তিতে নির্মিত প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।