পরামর্শ কমিটি গঠন করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবি

জেনারেশন রিপোর্ট

শিক্ষা সংশ্লিষ্ট অভিজ্ঞ ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে পরামর্শক কমিটি গঠন করে তাদের পরামর্শ মোতাবেক শিক্ষা কার্যক্রম চালু করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (বাকবিশিস)।

শনিবার (১৯ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সংগঠনটির আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এসব দাবি তুলে ধরেন।

বক্তারা জাতীয় প্রেস ক্লাবসহ দেশের বিভিন্ন জেলা সদরে শিক্ষা সংশ্লিষ্ট অভিজ্ঞ ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে পরামর্শ কমিটি গঠন করে তাদের পরামর্শক মোতাবেক শিক্ষা-কার্যক্রম চালু করা, স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে প্রবর্তিত জ্যৈষ্ঠ প্রভাষক পদ বাতিল করে পূর্বের ন্যায় সহকারী অধ্যাপক পদ বহাল রাখা, বেসরকারি কলেজের অনার্স ও মাস্টার্স পর্যায়ের জন্য নিয়োগকৃত শিক্ষকদের এমপিওভুক্ত করার দাবি জানান।

জনবল কাঠামো ২০২১ অনুযায়ী সহকারী অধ্যাপক পদে নিঃশর্ত পদোন্নতি প্রদান, করোনাকালে নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের এমপিওভুক্তি না হওয়া পর্যন্ত মাসিক ভিত্তিতে প্রণোদনা প্রদান করা, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পূর্ণাঙ্গ বাড়িভাড়া, উৎসবভাতা ও চিকিৎসাভাতা প্রদান করা, করোনাকালীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটি/গভর্নিং বস্তির স্বয়ংক্রিয়ভাবে নবায়ন করা, ২০২১-২২ অর্থ বছরে শিক্ষা বাজেটে অসঙ্গতি দূর করে শিক্ষা পুনরুদ্ধারের জন্য শিক্ষা বাজেটে অর্থ বৃদ্ধি করা, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর সুবিধা বোর্ডে পর্যাপ্ত বরাদ্দ প্রদান করা, সারাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সকল শিক্ষক-কর্মচারী ও ছাত্র-ছাত্রীদের অবিলম্বে টিকা প্রদানের ব্যবস্থা করারও দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন বাকবিশিস’র কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক ড. নুর মোহাম্মদ তালুকদার। আরও বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড. আজিজুর রহমান, অধ্যাপক ড. চন্দ্রনাথ পোদ্দার, অধ্যাপক সাবিহা সালাউদ্দিন, অধ্যাপক মিজানুর রহমান মজুমদার, অধ্যক্ষ আকমল হোসেন, অধ্যাপক সৈয়দ ফজলুর রহমান, অধ্যাপক নাজিম উদ্দিন তালুকদার প্রমুখ ও বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক দুলাল চন্দ্র চৌধুরী।