প্রতিভা অন্বেষণে মিউজিক ফ্রম হোম

প্রতিভা অন্বেষণে মিউজিক ফ্রম হোম

বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন মানুষদের সঙ্গীত প্রতিভাকে উৎসাহিত করতে অনলাইন ভিত্তিক প্রতিভা অন্বেষণ প্রতিযোগিতা “মিউজিক ফ্রম হোম” আয়োজন করে চাইল্ড ফাউন্ডেশন। কোভিড-১৯ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকানোর উদ্দেশ্যে ১ বছরের বেশি সময় যাবত বন্ধ হয়ে আছে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন মানুষদের পড়াশুনা, চিকিৎসা সহ যাবতীয় দৈনন্দিন কার্যক্রম যা তাদের জন্য অপরিহার্য বিষয়।

ঘরবন্দী এই সময়ে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন মানুষদের একটি অর্থবহ কাজের সাথে সংযুক্ত করার মাধ্যমে, তাদের জন্য একটি আনন্দময় পরিবেশ তৈরি করা এবং তাদের প্রতিভা গুলো দেশ-বিদেশের সবার মাঝে তুলে ধরা ছিল এই প্রতিযোগিতাটির উদ্দেশ্য।

যুক্তরাজ্য ভিত্তিক মিউজিক্যাল গ্রুপ K’antu Ensemble এর সহযোগিতায় কালচারাল এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম এর অংশ হিসাবে এই আয়োজন করা হয়েছিল যার সাথে আরও যুক্ত ছিল আর্টস কাউন্সিল (ইংল্যান্ড) এবং ব্রিটিশ কাউন্সিল (ইংল্যান্ড)। প্রতিযোগিতার থীম ছিল “দেশাত্মবোধক গান”।

বিচারক হিসাবে এই প্রতিযোগিতার সাথে যুক্ত ছিলেন দেশের জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী বাপ্পা মজুমদার, বাউল শফি মন্ডল এবং K’antu Ensemble এর প্রতিষ্ঠাতা রুথ হপকিন্স।

১০ই মার্চ থেকে শুরু হওয়া এই প্রতিযোগিতা শেষ হয়েছে ৩রা এপ্রিল। ৬৫ জন প্রতিযোগী এই প্রতিযোগিতায় নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভিডিও পাঠান। যেখান থেকে যাচাই-বাছাই পূর্বক নির্বাচন করা হয় ৪৪টি ভিডিও। প্রথম ১৪দিন সংগ্রহ করা হয় ভিডিও আর ২৭শে মার্চ থেকে তা চাইল্ড ফাউন্ডেশন এর পেইজ থেকে প্রদর্শন করা হয় পাবলিক ভোটের জন্য। যেখান থেকে বিচারকদের দেয়া নম্বর এবং সর্বোচ্চ লাইক, কমেন্ট, শেয়ার এর সমন্বয়ে নির্বাচন করা হয় বিজয়ীদের।

৯ই এপ্রিল রাত ৯টায় চাইল্ড ফাউন্ডেশন এর ফেইসবুক পেইজ থেকে লাইভে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। বিচারকদের অনুরোধে ৪৪জন প্রতিযোগিকেই বিজয়ী নির্বাচন করা হয় যারা অংশ নেবার সুযোগ পাবেন বিশেষ একটি মিউজিক্যাল ওয়ার্কশপে। সেরা ১০জন এর পাশাপাশি বিশেষ ৫জন পাবেন একটি মিউজিক ভিডিওতে অংশ নেবার সুযোগ এবং অংশগ্রহণকারী সবাই পাচ্ছেন ডিজিটাল সার্টিফিকেট।

লাইভে উপস্থিত ছিলেন স্বনামধন্য শিল্পী বাপ্পা মজুমদার, বাউল শফি মন্ডল এবং K’antu Ensemble এর প্রতিষ্ঠাতা রুথ হপকিন্স। তাছারাও চাইল্ড ফাউন্ডেশানের প্রতিষ্ঠাতা এবং চেয়ারম্যান তাহরিন আমান, সহপ্রতিষ্ঠাতা এবং সেক্রেটারি আনোয়ারা আনা আমান এবং গণসংযোগ বিভাগের প্রধান তানভীর এস. সিদ্দিকী লাইভে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, চাইল্ড ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের অন্যতম অরাজনৈতিক ও অলাভজনক প্রতিষ্ঠান যারা বিশেষ চাহিদা নিয়ে জন্মগ্রহন করা শিশুদের স্বাভাবিক মিথষ্ক্রিয়া, একীভূত সমাজ গঠনে ও তাদের ব্যাপারে সামাজিক সচেতনতাবৃদ্ধির লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।