শিক্ষক-মান যাচাইয়ের নির্দেশ

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই)

জেনারেশন রিপোর্ট

২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে (সেশনে) প্রশিক্ষণ নেওয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে শিক্ষক-মান অর্জনের বিষয়টি নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। শনিবার (১০ জুলাই) স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত অফিস আদেশ প্রকাশ করা হয়েছে রবিবার (১১ জুলাই)।

এর আগে গত ৭ জুলাই প্রশিক্ষণ নেওয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মান যাচাইয়ে অনলাইনে বিশেষ সেশন পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছে ডিপ্লোমা ইন প্রাথমিক এডুকেশন (ডিপিএড) বোর্ড। দেশের প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউট- পিটিআই’র সুপারিন্টেনডেন্টদের শিক্ষক মান যাচাইয়ে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল।

ওই নির্দেশনার পর প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে শিক্ষক-মান যাচাইয়ের নির্দেশ দিলো।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের অফিস আদেশে বলা হয়, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে ডিপিএড ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের প্রশিক্ষণ মুখোমুখি ও অনলাইনে মিশ্র পদ্ধতিতে হয়েছে। অনলাইনে চূড়ান্ত মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে কোর্স সম্পন্ন হয়েছে। বিভিন্ন পিটিআইয়ের প্রশিক্ষণার্থীদের চূড়ান্ত মৌখিক পরীক্ষা পর্যবেক্ষণকালে প্রশিক্ষণের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় শিক্ষক-মান সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা থাকা আবশ্যক। ডিপিএড প্রশিক্ষণার্থীদের প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ টার্মের মাধ্যমে শিক্ষক-মান অর্জন করার জন্য সুস্পষ্ট নির্দেশনা রয়েছে। শিক্ষক-মান সম্পর্কে ডিপিএড প্রশিক্ষণার্থীরা কতোটুক অর্জন করতে পেরেছেন তা যাচাইয়ের মাধ্যমে ‘শিক্ষক-মান’ তথ্য ও অনুশীলন (উদাহরণসহ) বিষয়ে প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থীকে হাতে লেখা একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে যথাযথ মূল্যায়নের নির্দেশ দেওয়া হয়। অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে মূল্যায়ন রেকর্ড সংরক্ষণ এবং আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে একটি প্রতিবেদন পাঠাতে নির্দেশনা দেওয়া হয় পিটিআই সুপারিন্টেনডেন্টদের।

বিষয়টি নিশ্চিত করতে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা অ্যাকাডেমিকে (নেপ) অনুরোধ জানানা হয় অফিস আদেশে।