শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা দিতে তথ্য চেয়েছে সরকার

জেনারেশন রিপোর্ট

নতুন সরকারি হওয়া ২৬৮টি কলেজের কাছে অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবলের মাধ্যমে পরিচালিত ওয়াইফাই ইন্টারনেট সেবা সংক্রান্ত তথ্য চেয়েছে সরকার। বুধবার (২৩ জুন) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর নির্ধারিত ছকে তথ্য পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে। আগামী ২ জুলাইয়ের মধ্যে এই তথ্য অধিদফতরে পাঠাতে হবে।

‘সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসমূহে ওয়াইফাই ইন্টারনেট সেবা প্রদান (দ্বিতীয় পর্যায়)’ প্রকল্পের সদ্য সরকারি হওয়া ২৬৮ কলেজের তথ্য সকল আঞ্চলিক পরিচালকের কাছে চাওয়া হয়।

বুধবারের (২৩ জুন) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের অফিস আদেশে বলা হয়, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ডাক টেলিযোগাযোগ বিভাগের আওতাধীন বিটিসিএল বাস্তবায়িত দেশের সকল সরকারি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, ট্রেনিং ইনস্টিটিউটকে বিটিসিএলের অপটিক্যাল ফাইবার কেবল নেটওয়ার্কের আওতায় আনা হবে। এ বিষয়ে সদ্য সরকারি হওয়া ২৬৮টি কলেজের অন্তর্ভুক্তির জন্য ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ সম্মতি বা অনাপত্তি চেয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের আওতাধীন যে সকল সরকারি কলেজে প্রকল্পের সেবা বিদ্যমান রয়েছে সেসব কলেজের তথ্য নির্ধারিত ছক অনুযায়ী প্রতিবেদন প্রস্তুত করে আগামী ২ জুলাইয়ের মধ্যে ই-মেইলে ([email protected]) পাঠাতে হবে।

নির্ধারিত ছক অনুযায়ী অঞ্চলের নাম, কলেজের সংখ্যা, প্রত্যেক কলেজের মাসিক ব্যয়ের পরিমাণ, স্থাপন করা ওয়াইফাইয়ের কার্যকারিতা, অসুবিধা উল্লেখ করে নির্ধারিত ছকে তথ্য পাঠাতে নির্দেশ দেওয়া হয়। পাশাপাশি অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবলের মাধ্যমে ওয়াইফাই সেবা ব্যবহারের অভিজ্ঞতার আলোকে প্রয়োজনীয় ও যৌক্তিক মন্তব্য চাওয়া হয়েছে।