হয়রানি বন্ধে হটলাইন চালুর প্রস্তাব প্রাথমিক শিক্ষকদের

জেনারেশন ডেস্ক

স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নি‌শ্চিত করে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের হয়রানি বন্ধ ও সহজে সেবা পেতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরে হটলাইন নম্বর চালু করার দাবি করেছেন প্রাথমিক শিক্ষকরা। সম্প্রতি শিক্ষকরা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মহাপরিচালকের কাছে এ দাবি জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি মোহাম্মদ শামসুদ্দিন মাসুদ বলেন, ‘মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের কাছে হয়রানির শিকার হয়ে শিক্ষকরা এই দাবি করছেন। আমরা চাই দ্রুত হট লাইন চালু করা হোক। শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে মহাপরিচালকের কাছে আবেদন জানাবো।’

গত ২২ মার্চ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম মাঠ পর্যায়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের হয়রানির শিকার হলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কোনও ছাড় দেওয়া হবে না বলে সতর্ক করেন। শিক্ষক নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের সময় মাঠ পর্যায়ের অফিসগুলো দালালমুক্ত করতে শিক্ষক নেতাদের প্রতি আহ্বান জানান মহাপরিচালক।

এই ঘটনার পর সম্প্রতি বেতন-ভাতা ১৩তম গ্রেড নির্ধারণের জন্য মাঠ পর্যায়ে নতুন করে হয়রানির শিকার হন প্রাথমিক শিক্ষকরা। শিক্ষকরা এই ঘটনার তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ জানিয়েছেন। এরপর অধিদফতর থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এসবের পরিপ্রেক্ষিতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকরা মাঠ প্রশাসনে হয়রানি বন্ধ ও শিক্ষকরা যাতে সহজে সেবা পান তা নিশ্চিত করতে অধিদফতরে হট লাইন চালুর দাবি করেন। শিক্ষকরা হয়রানি বা প্রতিবন্ধকতার শিকার হলেই যেন হটলাইন নম্বরে যোগাযোগ করে সমস্যার সমাধান পেতে পারেন।